Goodman Travels

শিক্ষকদের মর্যাদা শিক্ষকদেরকেই ফিরিয়ে আনতে হবে- শিক্ষা অফিসার

স্টাফ রিপোর্টারঃ পাবনা জেলা শিক্ষা অফিসার এস এম মোসলেম উদ্দিন বলেছেন, শিক্ষকদের মর্যাদা শিক্ষকদেরকেই ফিরিয়ে আনতে হবে। গতকাল শুক্রবার সকাল ১১ টায় রাধানগর মজুমদার একাডেমী ( স্কুল এন্ড কলেজ) অডিটরিয়ামে “ বিশ্ব শিক্ষক দিবস ৫ অক্টোবর” উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। তিনি আরও বলেন, আমাদের সময়কার স্কুল শিক্ষকদের দেখলে আমারা এখনো পায়ে হাত দিয়ে সালাম করি। বর্তমান শিক্ষার্থীরা তাদের শিক্ষককে দেখলে অন্যদিকে তাকায়ে না চিনার ভান করে। শিক্ষার্থীদের পাঠদানের ক্ষেত্রে মনোযোগি হতে হবে।

 

বিশেষ করে ডিজিটাল যুগে কম্পিউটার শিক্ষায় নিজেকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। আমাদের সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ারত অবস্থায় মাসের খরচ পেতে ৫/৭ দিন সময় লাগত আর টাকা পেলাম কী না তা চিঠি দিয়ে জানাতে আরও ৪/৫ দিন লাগত। বর্তমান সরকারের ডিজিটাল পদ্ধতিতে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। আজ এক মহুর্তের মধ্যে এক স্থান থেকে অন্যস্থানে টাকা লেন-দেন করা সম্ভব। আরএম একাডেমীর প্রধান শিক্ষক মো. আফজাল হোসেনের সভাপত্বি অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. ওয়াহেদুজ্জামান, পাবনা আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মো. আনছারুল্লাহ এবং বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. নওশের আলী মন্টু। অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য দেন স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ পাবনার সভাপতি অধ্যক্ষ মেনহাজ উদ্দিন, বাকশিস সদস্য সচিব এস এম মাহবুব আলম, পাবনা ইসলামীয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মো. ইকবাল হোসেন, ইমাম গাযযালী গালর্স স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সুরাইয়া সুলতানা, আরিফপুর ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাও: মো. মতিউর রহমান, পাবনা আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষ মো. আমানুল্লাহ খান, শহীদ রফিক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হেলেনা খাতুন, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সদস্য অধ্যাপক আমিরুল ইসলাম, আরএম একাডেমীর সহসকারী প্রধান শিক্ষক হেলাল উদ্দিন, দ্বিপচর ফাজিল মাদ্রাসা সুপার গোলাম মোস্তফা, বাঁশের বাধাঁ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক উম্মে হাবিবা প্রমুখ ।

 

অনুষ্ঠানের স ালকের দায়িত্ব পালন করেন আরএম একাডেমীর প্রভাষক ওয়ালি উল্লাহ। অনুষ্ঠানে খয়েরসূতি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ জিয়াউল হক জিয়া, শহীদ সাধন সঙ্গীত মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ মনিরা পারভীন, শহীদ এম মনছুর আলী কলেজের সহকারী অধ্যাপক আখতারুজ্জামান, আরিফপুর মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক আব্দুল বাতেন খান, আমাজাদ হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রওশন আলম, হাজেরা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বোরহান উদ্দিন প্রমুখসহ অর্ধসহস্রাধিক শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন।