Goodman Travels

অবশেষে পরিস্কার করা হলো সুজানগরের সেই আবর্জনার ভাগাড়

বার্তা সংস্থা পিপ (পাবনা) : অবশেষে পরিস্কার করা হয়েছে সুজানগর পৌর শহরের সুজানগর মহিলা ডিগ্রি কলেজের সামনে এবং মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের পিছনে জলের ধারের ময়লা আবর্জনার ভাগাড়। সুজানগর পৌরসভার উদ্যোগে (২৭ সেপ্টেম্বর)শুক্রবার ও গত বৃহস্পতিবার ঐ ময়লা আবর্জনার ভাগাড় পরিষ্কার করা হয়। এর আগে গত ২৫  তারিখে পাবনার জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ডেইলি পাবনা ডটকমে সুজানগরে আবর্জনার দুর্গন্ধে শিক্ষার্থী সহ সাধারণ মানুষদের দুর্ভোগ শীর্ষক শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সুজানগর পৌরসভার কঞ্জারভেন্সী ইন্সপেক্টর হাসান উদ্দিন জানান সংবাদ প্রকাশের পর কয়েকজন লেবার নিয়ে দ্রুত ঐ স্থানের সকল ময়লা আবর্জনা পরিস্কার করা হয়েছে ।

 

এবং সেই সাথে স্থানীয় হোটেলগুলোকে উক্ত স্থানে নোংরা ময়লা আবর্জনা না ফেলানোর জন্য পৌরসভার পক্ষ থেকে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সুজানগর মহিলা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী আসমা খাতুন বলেন ময়লা আবর্জনার দুর্গন্ধ সহ্য করে এতদিন নাকে কাপড় দিয়ে তাদেরকে প্রতিদিন এ পথ দিয়ে কলেজে চলাচল করতে হত ।বর্তমানে ঐ আবর্জনাগুলো পরিস্কার করায় পৌরসভা কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান তিনি। সুজানগর মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ(ভারপ্রাপ্ত) ও সুজানগর প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহজাহান আলী জানান, প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী সহ আমাদের সার্বক্ষণিক এই ভাগাড়ের আর্বজনার দুর্গন্ধ সহ্য করতে হতো।বর্তমানে আর এ ধরণের দুর্ভোগ পোহাতে হবেনা। স্থানীয় এলাকার আলী রেজা নামক এক ব্যক্তি জানান বর্তমানে ময়লা আবর্জনার দুর্গন্ধ না থাকায় সকলের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে। উল্লেখ্য অনেকদিন ধরে সুজানগর মহিলা ডিগ্রি কলেজের সামনে এবং মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের পিছনে জলার ধারে স্থানীয় হোলেট গুলো থেকে ময়লা আবর্জনা ফেলানোয় দুর্গন্ধে এ পথ দিয়ে চলাচলকারী মহিলা কলেজ ও আবুল কাশেম নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী-শিক্ষক সহ আশপাশের এলাকার মানুষদেরকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছিল। শুধু তাইনা ওই আস্তাকুঁড়ের কাছে পৌঁছানোর কয়েক গজ আগে থেকেই নাকে কাপড় দিতে চলাচল করতে হত মানুষদেরকে।

 

পৌর মেয়র আলহাজ আব্দুল ওহাব জানান, উক্ত স্থান থেকে ময়লা আবর্জনা পরিস্কার করার পরও যদি পূনরায় কেউ আবার ময়লা আবর্জনা ফেলে তাহলে অভিযুক্ত ঐ সকল হোটেল মালিকদেরকে বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।