Goodman Travels

হোটেলের দোতলায় নিয়ে বাবুর্চির শিশুকন্যাকে ধর্ষণ

ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিনিধি: পাবনার সাঁথিয়ায় নারী বাবুর্চির শিশুকন্যাকে (৯) ফুসলিয়ে হোটেলের দোতালায় নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ওই হোটেলের এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে। গত ৫ আগস্ট এ ঘটনা ঘটলেও সোমবার (২ সেপ্টেম্বর) এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন শিশুটির মা।

এদিকে অভিযোগ পাওয়ার পর আব্দুল্লাহ (১৯) নামের ওই হোটেল বয়কে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

থানায় দায়ের করা অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ওই নারী উপজেলার কাশীনাথপুর মোড়ে মোল্লা সুইটস অ্যান্ড রেস্টুরেন্টে রান্নার কাজ করেন। ঘটনার দিন তিনি তার শিশুকন্যাকে সঙ্গে নিয়ে হোটেলে কাজে যান। এ সময় হোটেল বয় আব্দুল্লাহ শিশুটিকে ফুসলিয়ে হোটেলের দোতলায় নিয়ে তার ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায়। পরে অনেক খোঁজা-খুঁজির পর ওই নারী হোটেলের দোতলায় তার মেয়েকে খুঁজে পান। এ সময় ওই শিশু জানায়, তাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে আবদুল্লাহ তার ওপর নির্যাতন চালিয়েছে।

অভিযোগে আরও বলা হয়, স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালী ঘটনাটি শোনার পর তারা বিষয়টি মীমাংসা করবেন বলে জানান। এদিকে শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা করানো হয়। কিন্তু দীর্ঘদিনেও স্থানীয়দের কাছ থেকে কোনো বিচার না পেয়ে থানায় মামলা করেন শিশুটির মা।

সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, থানায় অভিযোগ দায়েরের পর মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মঙ্গলবার পাবনা সিভিল সার্জন অফিসে পাঠানো হয়েছে। আর অভিযুক্তকে মঙ্গলবার সকালে পাবনা আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।