Goodman Travels

পাবনায় বৃদ্ধার রহস্যজনক মৃত্যু

বার্তা সংস্থা পিপ: পাবনার ভাঙ্গুড়ায় আকলিমা খাতুন (৬৫) নামে এক বৃদ্ধার রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার পার-ভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ রাতেই নিহতের বসতঘর থেকে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় তার মৃতদেহটি উদ্ধার করে। নিহত আকলিমা ওই গ্রামের মৃত হুজুর আলীর স্ত্রী। এদিকে নিহতের পরিবারের অভিযোগ তাকে হত্যার পর লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই আবু হানিফ বাদি হয়ে থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করেছে।

এলাকাবাসি ও নিহতের পরিবারের সাথে কথা বলে জানা গেছে, গত দশ বছর পূর্বে নিহত আকলিমা’র ছোট মেয়ে রেবা খাতুনের (৩০) সাথে একই গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে আব্দুল আলীমের (৩৩) বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই আব্দুল আলীম যৌতুকের জন্য মাঝে মধ্যেই রেবাকে মারধর করত। বৃদ্ধা মা মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে মেয়ে জামাইকে নিজের বাড়ির পাশেই একটি মুদি দোকান করে দেন। কিন্তু এতেও জামাই আলীম সন্তষ্ট না হয়ে রিবাকে মারধোর করে বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

বৃহস্পতিবার গ্রাম প্রধানদের সহায়তায় রেবাকে আব্দুল আলীমের বাড়িতে রেখে আসলে আবারও তাকে মারধর শুরু করে। রেবাকে নির্যাতনের কথা শুনে বৃদ্ধা মা সেখানে গেলে তাকেও এলোপাথারি ভাবে মারধর করে জামাই আলীম। পরে রাত দশটার দিকে আকলিমা লজ্জায় নিজ ঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করে। তবে নিহতের পরিবারের অভিযোগ তাকে হত্যার পর লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে।

ভাঙ্গুড়া থানার আফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মাসুদ রানা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এটি হত্যা না আত্মহত্যা তা এখনই বলা যাচ্ছে না। সকালে নিহতের মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।