Goodman Travels

পাবনায় বউ থাকল বাপের বাড়ি বর গেল কারাগারে!

ফাইল ছবি

পাবনার চাটমোহর উপজেলায় বাল্যবিয়ের দায়ে বাবা-ছেলে কারাদণ্ড ও মেয়ের বাবাকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার রাতে উপজেলা ছাইকোলা ইউনিয়নের কাটেঙ্গা গ্রামে বিয়েবাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে এ সাজা দেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইকতেখারুল ইসলাম।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের বরুরিয়া পশ্চিমপাড়া গ্রামের খাইরুল ইসলাম (২২), তার বাবা মোস্তফা সরদার ও কনের বাবা মো. জামাল প্রামাণিক।

ভ্রাম্যমাণ আদালত ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার উপজেলার কাটেঙ্গা উত্তরপাড়া গ্রামের জামাল প্রামাণিকের মেয়ে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী জুঁই খাতুনের সঙ্গে একই উপজেলার বরুরিয়া গ্রামের মোস্তফা সরদারের ছেলে খাইরুল ইসলামের বিয়ে ঠিক হয় বুধবার।

সেই মোতাবেক সকাল থেকেই কনের বাড়িতে চলছিল নানা অনুষ্ঠান।

সন্ধ্যায় বর ও বরপক্ষের লোকজন কনের বাড়িতে হাজির হয়। খাওয়া-দাওয়া পর্ব শুরু হওয়ার সময় বাল্যবিয়ে হচ্ছে এমন গোপন সংবাদ পেয়ে বিয়েবাড়িতে পুলিশ নিয়ে হাজির হন অ্যাসিল্যান্ড ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইকতেখারুল ইসলাম।

এর পর জিজ্ঞাসাবাদে বাল্যবিয়ের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সেখানেই ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ছেলের বাবা মোস্তফা সরদারকে ৬ মাস, তার ছেলে (বর) খায়রুল ইসলামকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং মেয়ের বাবাকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে সাত দিনের দণ্ডাদেশ প্রদান করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

পরে জরিমানার টাকা দিয়ে মুক্ত হন মেয়ের বাবা। এ ছাড়া বয়স না হওয়া পর্যন্ত বাল্যবিয়ে দেবে না মর্মে কনের অভিভাবকের কাছ থেকে একটি মুচলেকা নেয়া হয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চাটমোহর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. শরিফুল ইসলাম জানান, দণ্ডপ্রাপ্ত বাবা-ছেলেকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। বৃহস্পতিবার তাদের দুজনকে পাবনা জেলহাজতে পাঠানো হবে।