Goodman Travels

পাবনার বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ নুরুন্নবীর আজ চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী

বার্তা সংস্থা পিপ : পাবনার সর্বজন শ্রদ্ধেয় শিক্ষাবিদ প্রফেসর মুহাম্মদ নূরুন্নবীর আজ ৪ আগষ্ট রোববার চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী। ২০১৫ সালের এই দিনে পাবনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় শোক দিবস উদযাপনের প্রস্তুতি সভায় বক্তব্য দেওয়ার সময় তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হন। তাৎক্ষনিকভাবে জেলা প্রশাসকসহ প্রশাসনের লোকজন তাকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

প্রফেসর নুরুন্নবী পাবনা বইমেলা উদযাপন পরিষদের সভাপতি, রবীন্দ্র সংগীত সম্মিলন পরিষদ, পাবনা জেলা শাখার সভাপতি, অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারী কল্যাণ পরিষদের সভাপতি। এ ছাড়া পাবনার বিভিন্ন সামাজিক -সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। সুবক্তা হিসেবে তাঁর সুখ্যাতি ছিল। তিনি ছিলেন পাবনার সর্বস্তরের মানুষের অত্যন্ত প্রিয় এবং শ্রদ্ধাভাজন। জেলার শিক্ষা বিস্তারে সদালাপী এই মানুষটির ঐকান্তিক ভূমিকা ছিল।

প্রফেসর নূরুন্নবীর চতুর্থ মৃতবিার্ষিকী উপলক্ষে রোববার পাবনার আরিফপুর কবরস্থানে কবর জেয়ারত ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।
প্রফেসর নুরুন্নবীর বড় জামাতা সিনিয়র যুগ্মসচিব মো: সেলিম আখতার প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের পরিচালক, মেঝ জামাতা ফরিদপুরের বিশিষ্ট শিল্পপতি করিম গ্রুপের চেয়ারম্যান এবং ফরিদপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি সাবেক সভাপতি আলহাজ মো: জাহাঙ্গীর মিয়া, ছোট জামাতা বিশিষ্ট ভুত্ত্ব, গ্যাস ও খনিজ বিশেষজ্ঞ ড. মো: আব্দুস সামাদ আজাদ, বড় ছেলে মাহমুদ উন নবী কল্লোল পাবনার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, মেঝ ছেলে হাবিবুন্নবী হিল্লোল বেলজিয়ামের একটি কোম্পানীতে সিসটেম ইঞ্জিনিয়ার ও ছোট ছেলে রাশিদ উন নবী পাপ্পু মিডল্যান্ড ব্যাংকের ঢাকার মীরপুর শাখার ম্যানেজার। মরহুম নুরুন্নবীর স্ত্রী নুরজাহান বেগম তৎকালীণ বিএ পাশ এবং একমাত্র ভাই ডা. লুৎফর রহমান অবসরপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা।