Goodman Travels

বজ্রপাতে নিহতদের পরিবারের পাশে ইউএনও

আরিফ খাঁন, বেড়া: পাবনার বেড়া উপজেলা নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের আগবাগশোয়া গ্রামের ৩ জন কৃষক ও একই উপজেলার বক্তারপুর গ্রামের সপ্তম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রী বজ্রপাতে নিহত হন।

শুক্রবার বিকাল ৩টার দিকে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওই দিন রাত ৮ টার দিকে বেড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসিফ আনাম সিদ্দিকী বজ্রপাতে নিহত নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের আগবাগশোয়া গ্রামের মৃত জিনাত প্রামানিকের ছেলে আব্দুল মান্নান, মৃত হবি মাতুব্বরের ছেলে আবদুস সালাম ও মনছের মল্লিকের ছেলে আনছের মল্লিক ও উপজেলার বক্তারপুর গ্রামের নিহত নাছিমা খাতুনের বাড়িতে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের সমবেদনা জানান।

এসময় তিনি পাবনা জেলা প্রশাসকের তহবিল থেকে নগত ২০ হাজার টাকা করে চার পরিবারকে মোট ৮০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন ও শুকনো খাবার তুলে দেন।

উল্লেখ্য, শুক্রবার বিকাল ৩ টার দিকে বেড়া উপজেলার নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের আগবাগশোয়া গ্রামের কয়েকজন কৃষক চরে বাদাম তুলছিলেন। এসময় হঠাৎ করে বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই মান্নান, আব্দুস সালাম ও আনসার আলী মারা যান। অপরদিকে উপজেলার পুরান ভারেঙ্গা ইউনিয়নের বক্তারপুর গ্রামে বাড়ির উঠোন দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় বজ্রপাতে তমসের ব্যাপারীর মেয়ে নাছিমা খাতুন নামে সপ্তম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রী নিহত হন। নিহত নাছিমা খাতুন নতুনভারেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। একই ঘটনায় একই গ্রামের একই ইউনুস মোল্লার ছেলে এরশাদ (২৬) আহত হন। সে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। এব্যপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসিফ আনাম সিদ্দিকী জানান, এ অবস্থায় নিহতদের পরিবারকে সাহায্য সহযোগিতা করাটা মুল বিষয় না। এ অবস্থায় তাদের পাশে দাড়িয়ে সমবেদনা জানানোটাই মুল বিষয়।

e a message…